উচ্চ মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান প্রথম পত্র সৃজনশীল প্রশ্ন (HSC Biology 1st Paper CQ)


চতুর্থ অধ্যায় : অনুজীব


(ক) জ্ঞানমূলক প্রশ্ন :


১। ম্যালেরিয়া কি?
২। ভাইরাস কী? (ঢাকা বোর্ড-২০১৫)
৩। ব্যাকটেরিয়া কি? (যশোর বোর্ড-২০১৫)
৪। দাদ রোগের জীবাণুর নাম কী? (বরিশাল বোর্ড-২০১৫)
৫। অণুজীব কাকে বলে?
৬। জনুক্রম কী?

(খ) অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :


১। ম্যালেরিয়া রোগ কিভাবে ছড়ায়? ২
২। ভেক্টর ও পোষক বলতে কী বুঝ? ২
৩। ভাইরাসকে জীব ও জড়ের সেতুবন্ধন বলা হয় কেন?

(গ) ও (ঘ) প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন :



১। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
এক সময় ম্যালেরিয়া একটি মহামারি রোগ ছিল। ম্যালেরিয়া লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যেত। কারণ মানুষ জানত না কেন এই রোগ হয়? এ জ্বরের কোন চিকিৎসা ছিল না। বর্তমানে কুইনাইন জাতীয় ওষুধের সাহায্যে এই জ্বর থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়। ১৯০০ সালের স্যার প্যাট্রিক ম্যানসন প্রমাণ করেন যে, ম্যালেরিয়া জীবাণু মশকীর সাহায্যে মানবদেহে সংক্রামিত হয়।
(গ) উপোরোক্ত রোগের লক্ষণগুলো লিখ। ৩
(ঘ) উপোরোক্ত রোগ নিয়ন্ত্রণের উপায়গুলো আলোচনা কর। ৪

২। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
রহিম তার ক্ষেতের পেঁপে গাছগুলোকে মোজাইক রোগে আক্রান্ত হতে দেখে খুবই দুঃশ্চিন্তায় পড়লো । দেরি না করে সে পরামর্শের জন্য কৃষি কর্মকর্তার শরণাপন্ন হলো।
(গ) উলেখিত রোগটি কী ধরনের জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত এবং রহিম কিভাবে রোগটিকে সনাক্ত করল? ৩
(ঘ) কৃষি কর্মকর্তা রহিমের পেঁপে ক্ষেতটিকে রক্ষা করতে কী কী পরামর্শ দিবেন বলে মনে কর? ৪

৩। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) C অংশটি A তে প্রবেশ করে যে ঘটনা ঘটায় তা বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) C এর বিপরীত সূত্রকবিশিষ্ট ৪টি অণুজীবের নাম ও গুরুত্ব বিশ্লেষণ কর। ৪

৪। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।

(গ) উপরের চক্রটির চিহ্নিত চিত্র অংকন করে বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) কি কি কৌশল গ্রহণ করলে মানুষের দেহে উদ্দীপকের রোগটি হবে না আলোচনা কর। ৪

৫। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উপরের জীবটি মানুষের দেহে কিভাবে ছড়ায় বর্ণনা দাও। ৩
(ঘ) মশকীর দেহে উক্ত জীবটির জীবনচক্র চিত্রসহ বর্ণনা দাও। ৪

৬। নিচের চিত্রটি পর্যবেক্ষণ করে প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও-


(গ) Plasmodium আক্রান্ত হলে উদ্দীপকের প্রাণিতে কী ঘটে চিত্র অংকন করে দেখাও। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের প্রাণি থেকে পরিত্রাণের উপায় ব্যাখ্যা কর। ৪

৭। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
মণি ও মুক্তা দুই বোন, চট্টগ্রাম থেকে বাড়ী ফেরার কয়েকদিন পর তারা দু’জনই জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। তবে তাদের জ্বরের প্রকৃতি এক নয়। মনির কাঁপুনিসহ জ্বর আসলেও মুক্তার হঠাৎ করেই প্রচণ্ড জ্বর এসেছিল । রক্ত পরীক্ষায় দেখা যায় যে, মণি রক্তস্বল্পতা আর মুক্তার রক্তে অণুচক্রিকার সংখ্যা অনেক কম আছে।
(গ) মণি ও মুক্তার জ্বরের লক্ষ্মণগুলোর মধ্যে তুলনামূলক আলোচনা কর। ৩
(ঘ) মণি ও মুক্তার জ্বর নিয়ন্ত্রণে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ আলোচনা কর। ৪

৮। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
নির্দিষ্ট পরজীবীর সংক্রমণে মানুষের রক্ত স্বল্পতা এবং কাপুনিসহ জ্বর আসে । তবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াও বিভিন্নভাবে পরজীবীর ক্ষতি থেকে মানুষ রক্ষা পেতে পারে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত রন্ত স্বপ্পতার কারণ ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের পরজীবী থেকে পরিত্রাণের উপায় বিশ্লেষণ কর। ৪

৯। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
গবাদি পশু ঘাস ও খড় খায়। এদের প্রধান উপাদান সেলুলোজ। গবাদি পশুর অন্তরে বসবাসকারী এক প্রকার কোষীয় জীবাণু সেলুলোজ হজমে প্রত্যক্ষভাবে সাহায্য করে। অপর একটি অকোষীয় জীবাণু এই কোষীয় জীবাণুকে সংক্রমণ করে এর দেহের অভ্যন্তরে সংখ্যা বৃদ্ধি করে।
(গ) উদ্দীপকের অকোষীয় জীবাণুটির চিহ্নিত চিত্র আঁক। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের কোষীয় জীবাণুটির বৈজ্ঞানিক নাম লেখো এবং মানবজীবনে এ জীবাণুটি কী কী ভূমিকা রাখতে পারে তা বিশ্লেষণ কর। ৪

১০। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
সোহান বিশুদ্ধ পানি পান করে না। একদিন সে প্রচণ্ড ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলো এবং বমি করতে লাগলো । তার দেহে পানি শূন্যতা দেখা দিলো।
(গ) সোহানের রোগটির চিকিৎসা বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) যে ধরনের অণুজীব সোহানের রোগটির কারণ সেগুলো শুধু ক্ষতিকরই নয়, কিছু কিছু আমাদের দেহের জন্য অত্যান্ত উপকারী – ব্যাখ্যা কর। ৪

১১। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
গতরাত থেকে তানিয়ার বমিসহ প্রবল ডায়রিয়া। এতে তার শরীর ঠান্ডা হয়ে যায় এবং রক্তচাপ কমে যায় । আবার তার বান্ধবী রিতা কয়েকদিন ধরে প্রচণ্ড জ্বরে আক্রান্ত। সাথে শরীরে ব্যথা ও র‍্যাশ দেখা গিয়েছে।
(গ) তানিয়াব রোগটির জন্য দায়ী জীবাণুর একটি আদর্শ গঠনের বর্ণনা দাও।
(ঘ) রিতার রোগের কারণ ও প্রতিকার, তানিয়ার রোগ থেকে ভিন্ন- বিশ্লেষণ কর। ৪

১২। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
রফিক ও শফিক অণুজীব নিয়ে গবেষণাগারে কাজ করেছেন। রফিকের গবেষণার বিষয়বস্তু হচ্ছে অকোষীয় রোগসৃষ্টিকারী অণুজীব এবং শফিকের আদিকোষীয় অণুজীব । রফিকের পর্যবেক্ষণে জানা গেল তার অণুজীব শফিকের অণুজীবকে ভক্ষণের মাধ্যমে সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।
(গ) রফিক ও শফিকের ব্যবহৃত অণুজীব দুটির পার্থকা কর। ৩
(ঘ) রফিকের পর্যবেক্ষণটি বিশ্লেষণ কর। ৪

১৩। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
আসলাম ও শফিক দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। উভয়ের বাবা কৃষক। আসলামের একটি পেঁপের বাগান আছে। আসলাম লক্ষ্য করে পাতার বোটা ও ফলে তৈলাক্ত পানি-সিক্ত গাঢ় সবুজ দাগ সৃষ্টি হয়েছে। পেঁপে হলুদ হয়ে যায় এবং পুষ্ট হবার আগেই ঝরে পড়ে । শফিক তার বাবার সাথে ধান খেতে গিয়ে দেখে পাতায় ভেজা অর্ধস্বচ্ছ লম্বা দাগের সৃষ্টি হয়েছে। দাগগুলো ক্রমশ হলদে সাদা বর্ণ ধারণ করছে। দুই বন্ধু মিলে কলেজের জীববিজ্ঞান শিক্ষকের নিকট থেকে এ সমস্যা দূরীকরণের পরামর্শ গ্রহণ করে উপকৃত হলো ।
(গ) জীববিজ্ঞান শিক্ষক এই সমস্যা সমাধানে আসলাম ও শফিককে কী পরামর্শ দিয়েছিলেন? ৩
(ঘ) আসলাম ও শফিকের সমস্যা একই ধরনের হলেও প্রতিকারের উপায় ভিন্ন। কারণ বিশ্লেষণ কর। ৪

১৪। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
রফিকের জ্বর। ডাক্তার তার রক্ত পরীক্ষা করে বললেন, জ্বরের কারণ মশকী বাহিত এক কোষী জীব যা মানুষের যকৃত কোষ ও লোহিত কণিকা ধ্বংস করে।
(গ) উদ্দীপকের রোগের জীবাণুর নাম ও রোগ লক্ষণ লেখো। ৩
(ঘ) রফিকের জ্বরের কারণ বিশ্লেষণ কর। ৪

১৫। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
একটি জীবাণুর ভিন্ন ভিন্ন প্রজাতি তাদের জীবনচক্রের আব্যশিক কিছু পর্যায় সম্পন্ন করতে গিয়ে মানুষসহ বিভিন্ন মেরুদণ্ডী প্রাণীতে একটি রোগের সৃষ্টি করে এবং একটি নির্দিষ্ট প্রজাতির মশকীর মাধ্যমে রোগটি ছড়ায়।
(গ) উক্ত জীবাণুটির স্পোরের বর্ণনা দাও যা প্রথমোক্ত জীবকে আক্রমণ করে। ৩
(ঘ) উক্ত রোগটির জীবাণুর জীবনচক শেঘোক্ত জীবটি ছাড়া সম্পন্ন করা সম্ভব নয়- বিশ্লেষণ কর। ৪

১৬। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
শিক্ষক ছাত্রদের বললেন, কিছু অণুজীব আছে যেগুলো ভাইরাসের চেয়ে একটু বড় এবং সব জায়গায় পাওয়া যায়। তিনি আরও বললেন, এগুলোর ক্ষতিকর প্রভাবের পাশাপাশি পর্যাপ্ত অর্থনৈতিক গুরুত্বও রয়েছে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত অণুজীবের শ্রেণিবিভাগ কর । ৩
(ঘ) উদ্দীপকের শেষ লাইনটি বিশ্লেষণ কর। ৪